বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে হাবিপ্রবিতে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত
Posted: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১।


১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, হাবিপ্রবি, দিনাজপুর: আজ ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(হাবিপ্রবি) ২৩তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস । ১৯৯৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তৎকালীন ও বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন এবং এর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরু হয়। প্রতি বছর এই দিনের গুরুপ্ত অনুধাবন করে ”বিশ্ববিদ্যালয় দিবস” পালন হয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছরও বিভিন্ন আয়োজনের মাধ্যমে হাবিপ্রবিতে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত হয়েছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিষয় টিকে বিবেচনায় নিয়ে দিবসটিকে ঘিরে সীমিত পরিসরে কর্মসূচিসমূহ পালিত হয়। কর্মসূচির মাঝে ছিল সকাল ৯ টায় প্রশাসনিক ভবনের সম্মুখে জাতীয় পতাকা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন, মুক্ত আকাশে শান্তির দূত পায়রা ও বেলুন উড্ডয়ন, ভিআইপি কনফারেন্স রুমে ArcHSTU Exhibition এর শুভ উদ্বোধন, সকাল ৯ টা ৪৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ, ১১.৩০ মিনিটে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শীর্ষক অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা এবং বিশেষ মোনাজাত ও সন্ধ্যায় আলোকসজ্জা।



বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. ইমরান পারভেজ এর সঞ্চালনায় মাছের পোনা অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন হাবিপ্রবির মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদার ও ফিশারিজ অনুষদের ডীন এ কে এম রুহুল আমিন। এ সময় মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর সকলকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে দেশীয় জাতের মাছের পোনা ছাড়া হলো। ফিশারিজের পুকুরগুলোকে সংস্কার করে মাছ চাষপোযোগি করার ইচ্ছা আছে আমার। কিভাবে পুকুরে দীর্ঘমেয়াদে পানি ধরে রাখা যায় সে বিষয়ে গবেষণা করে উদ্যোগ নেয়া হবে। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা কার্যক্রমকে আরো একধাপ এগিয়ে নিতে একটি অত্যাধুনিক সেন্ট্রাল ল্যাব তৈরির উদ্যোগের পাশাপাশি প্রতিটি বিভাগের ল্যাব ও শিক্ষক সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে। এছাড়া শিক্ষার্থীদের প্রধান একটি সমস্যা সেশনজট নিরসনে কার্যকর ও যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবো। বিশ্ববিদ্যালয়কে সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করার ক্ষেত্রে তিনি শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীসহ হাবিপ্রবি সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।



এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের “প্রতিষ্ঠা-প্রাপ্তি-প্রত্যাশা” শীর্ষক আলোচনা সভা সন্ধ্যা ৭.৩০ টায় ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সম্মানিত সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সম্মানিত সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, সূচনা বক্তব্য রাখবেন বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব এবং ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. ইমরান পারভেজ ।

News and Events

winwin winwin winwin winwin winwin bongda tv winvn SEN88 D9BET